সম্পাদকীয়

হোম দশদিক সংখ্যাঃ ৬৩


সানাউল হক
সম্পাদক,দশদিক


২০০৭ সালে প্রতিষ্ঠিত জাপান সরকারে নিবন্ধিকৃত ব্যবসীদের একমাত্র বাংলাদেশি সংগঠন বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্স এ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি ইন জাপান (বিসিসিআইজে)। সম্প্রতি জাপানের টোকিওতে অনুষ্ঠিত হলো বিসিসিআইজের নির্বাচিত কমিটির প্রথম সম্মেলন ও আনন্দ আয়োজেন। বাংলাদেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে সংগঠনের সদস্যরা কিভাবে আগামীতে কাজ করবে তা নির্ধারণ করতেই এ আয়োজন ছিল খুবই গুরুত্বপূর্ণ ও দিক নির্দেশনা মূলক। শিল্পে বিনিয়োগের মধ্যদিয়ে বাংলাদেশের উন্নয়নে কাজ করে যাওয়ার কথা জানালেন বিসিসিআইজের ব্যবসায়ীরা নেতরা।বাংলাদেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নের দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেন সংগঠনের সদস্যরা। জাপান বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি বাদল চাকলাদার বলেন, “বাংলাদেশের অনেক লোক এখন জাপানে ব্যবসা করছেন, তারা এখন দেশেও ব্যবসা করতে যাওয়ার জন্য ইচ্ছুক। যদি বাংলাদেশ সরকারআমাদের সুযোগ-সুবিধা এবং নিরাপত্তা দেয় তাহলে অবশ্যই আমরা বিসিসিআইজের মাধ্যমে বিনিয়োগ করবো।” দেশ থেকে আগত অতিথিরা এর সাথে একাত্বতা ঘোষণা করেণ।চ্যানেল আই এর পরিচালক, প্রকৃতি ও জীবন ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান মুকিত মজুমদার বাবু বলেন, আমরা যারা বাঙালি, বাংলাদেশে থাকি বা বিভিন্ন দেশে আছি, যার যার অবস্থান থেকে নিজের ক্ষমতার সঙ্গে মমতা মিশিয়ে যেনো দেশের জন্য কিছু করি। কারণ আমরা যদি না করি, আজ দেশটা যে অবস্থানে আছি সেখান থেকে বেরিয়ে আসতে পারবে না।নিজ নিজ অবস্থান থেকে দেশের উন্নয়নে প্রত্যেককে কাজ করার আহ্বান জানান প্রকৃতি ও জীবন ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান মুকিত মজুমদার বাবু। বিসিসিআইজেই হতে পারে জাপান ও বাংলাদেশের দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্যিক ও শিল্পায়নে সেতুবন্ধন । যার সুফল পাবে প্রবাসে ও বাংলাদেশের জনসাধারণ। সেই সাথে দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে জন্যও হবে এক উজ্জল দৃষ্টান্ত।


পাতাটি ৬৭৫ বার প্রদর্শিত হয়েছে।